Home পশ্চিমবঙ্গ Women Employment Platform: মহিলাদের জন্য নতুন প্রকল্পের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর!

Women Employment Platform: মহিলাদের জন্য নতুন প্রকল্পের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর!

Women Employment Platform: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সামাজিক প্রকল্পগুলিকে মহিলাদের কাছে পৌঁছে দিতে অভিনবপদক্ষেপ নিয়েছেন।

by Swaccha Barta
Women’s Employment

Women Employment Platform:

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মহিলাদের আরও সামাজিক প্রকল্পগুলিকে আরও উদ্ভাবনী পদক্ষেপ নিয়েছেন। “Women Employment Platform” রাজ্য সরকার দ্বারা প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। সূত্রের মতে, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার আসন্ন পঞ্চায়েত সমীক্ষার প্রত্যাশায় প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে রাজ্যের লক্ষাধিক মহিলাকে চাকরি দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে।

Women’s Employment

Women Employment Platform in detail

মোট 10 টি দফতরের সচিবদের নিয়ে প্ল্যাটফর্ম গঠিত হয়েছে।

  • অর্থ দফতর
  • শ্রম দফতর
  • কারিগরি শিক্ষা দফতর
  • শিল্প দফতর
  • ক্ষুদ্রশিল্প দফতর
  • স্বাস্থ্য দফতর
  • অনগ্রসর শ্রেণী কল্যাণ দফতর
  • পঞ্চায়েত
  • তথ্য প্রযুক্তি দফতর
  • তথ্য সংস্কৃতি দফতর

শিশু ও নারী উন্নয়ন ও সমাজকল্যাণের মহাপরিচালককে নির্বাহী পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় ( Women Employment Platform)।

Reason behind this step?

  • মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যের মেয়েদের বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে আর্থিক সহায়তা দিতে চান।
  • এ বার রাজ্যের লক্ষাধিক মহিলার কর্মসংস্থানের নিশ্চয়তা দিচ্ছে রাজ্য সরকার নিজেই৷
  • এর মাধ্যমে মহিলাদের জন্য স্থায়ী কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হয়।

আর এই তিন কারণেই গঠন করা হয়েছে ‘Women Employment Platform’।

How to work this platform?

  • মন্ত্রিসভার তরফে প্রথমে এই উদ্যোগকে ছাড়পত্র দেওয়া হবে।
  • এরপর প্রত্যেকটি দফতরের মহিলাদের চাকরির সমস্ত তথ্য মিলিয়ে সম্পর্কিত তথ্য মিলিয়ে দেখা হবে।
  • এবার কোথায় কতজন কাজ করছেন, তার একটি রিপোর্ট তৈরি করে কোন ক্ষেত্রে মহিলাদের আরও চাকরির সুযোগ দেওয়া হয়, সেই দিকটি বিবেচনা করা হবে।
  • নারীদের জন্য আরও বেশি চাকরি তৈরি করতে পারে এমন বেসরকারি সংস্থাগুলিও বিবেচনা করা হচ্ছে।
    রাজ্যগুলি অবশেষে একটি শ্বেতপত্র তৈরি করবে।
    এর উপর নির্ভর করেই পরবর্তী কর্মসূচি সাজিয়ে তোলা হবে বলে সূত্রের খবর মিলেছে।

West Bengal schemes for women?

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ১২ বছরের শাসনকালে বাংলার বুকে মহিলাদের উন্নয়ন যে এখন দেশেরও নজর কাড়ছে সেটা আর আলাদা করে বলে দেওয়ার প্রয়োজন নেই। মমতা শুধু নারীর ক্ষমতায়নে(Women Empowerment) একাধিক প্রকল্প চালু করেছেন তাই নয়, নারী শিক্ষায় রাজ্যকে অনেকটাই এগিয়েও দিয়েছঅন। উচ্চশিক্ষা সম্পূর্ণ করছেন, এমন মহিলা পড়ুয়াদের সংখ্যা বেড়েছে বহুগুণ। ফলে, পাল্লা দিয়ে বেড়েছে চাকরি পাওয়ার তাগিদও। এই সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট নজরে পড়েছে মুখ্যমন্ত্রীরও। এটাই যে শুধু সরকারি ক্ষেত্রেই নয়, বেসরকারি সংস্থাগুলিই যাতে বেশি করে মহিলাদের কাজ দেয় সেই বিষয়টিও দেখা হবে।

Related Articles

Leave a Comment