Home পশ্চিমবঙ্গ Calcutta High Court: তৃণমূলের পঞ্চায়েতের প্রধানই কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা হাতিয়েছেন

Calcutta High Court: তৃণমূলের পঞ্চায়েতের প্রধানই কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা হাতিয়েছেন

Calcutta High Court: চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি তিনটি প্রকল্পের তালিকা প্রকাশ করেন জেলাশাসক। এই তালিকায় দাবি করা হয়েছে সব প্রকল্পেই কারচুপি করা হয়েছে।

by Swaccha Barta
Calcutta High Court

কলকাতা: কেন্দ্রীয় প্রকল্পের থেকে অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ। এই ঘটনায় উত্তর দিনাজপুর জেলা জেলাশাসককে বিস্তারিত তদন্তের নির্দেশ দেন কলকাতা হাইকোর্টের ( Calcutta High Court ) প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। পঞ্চায়েত দপ্তরের সচিবের তত্ত্বাবধানে তল্লাশির নির্দেশ দিয়েছে আদালত। জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সময়ে সময়ে পঞ্চায়েতের সচিবের কাছে রিপোর্ট পাঠান। আদালত তাই নির্দেশ দিয়েছেন। শুক্রবার, প্রধান বিচারপতি টি এস শিবজ্ঞানমের নেতৃত্বে একটি বিভাগীয় প্যানেল আগামী দুই মাসের মধ্যে তদন্ত শেষ করার নির্দেশ দিয়েছে।

দিনাজপুর উত্তরের বাসিন্দারা 2022 সালে কলকাতা হাইকোর্টে ( Calcutta High Court ) আবেদন করেছিলেন, দাবি করেছিলেন যে 100 দিনের শ্রম প্রকল্পের তহবিল আত্মসাৎ করা হয়েছে। গত বছরের ৩১ অক্টোবর কলকাতা হাইকোর্টের একটি শাখা দিনাজপুর উত্তরের জেলা অ্যাটর্নিকে বিষয়টি তদন্তের নির্দেশ দেয়।

পর্যালোচনা শেষে চলতি বছরের ৩০ জানুয়ারি জেলাশাসক তিনটি প্রকল্পের তালিকা প্রকাশ করেন। এই তালিকায় দাবি করা হয়েছে সব প্রকল্পেই কারচুপি করা হয়েছে। এই তদন্তের পরে, স্থানীয় বিচারক জগদীশপুর গ্রামের পঞ্চায়েতের তৃণমোর প্রধানের কাছ থেকে প্রায় ৪ লক্ষ ২০ হাজার টাকা উদ্ধারের নির্দেশ দেন। কিন্তু সেই অনুসন্ধানের পরও অসন্তোষ প্রকাশ করে ফের আদালতের দ্বারস্থ হন মামলাকারী। সবকটি প্রকল্পের তছরুপের তথ্য সামনে আসেনি বলেই দাবি করা হয়।

Calcutta High Court

Calcutta High Court

হাইকোর্টের বক্তব্য, পঞ্চায়েত প্রধানের কাছ থেকেই যদি টাকা উদ্ধার হয়, তাহলে তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। মামলাকারীর সাক্ষ্যপ্রমাণ শুনে আদালত দেখতে পান, আগের আদেশ যথাযথভাবে মানা হয়নি। জেলা প্রশাসন পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করেনি।

বিচারকদের প্রশ্ন, শুধু তিনটি প্রকল্পে কেন দুর্নীতির তথ্য উপস্থাপন করা হয়? জেলা জেলাশাসকের অধীনে আরও অনেক প্রকল্প আছে, সেগুলো নিয়ে গবেষণা হয়েছে কি? বিচারক আগামী শুনানিতে এই সব প্রশ্নের উত্তর চান।

Related Articles

Leave a Comment