Home পশ্চিমবঙ্গ পঞ্চায়েত ভোটে সিপিএমের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে ফেলেছে বিজেপি

পঞ্চায়েত ভোটে সিপিএমের পাতা ফাঁদে পা দিয়ে ফেলেছে বিজেপি

বিজেপির পঞ্চায়েত স্তরে প্রার্থী নির্বাচন সু কৌশলের করতে হবে। পুরনো কার্য কর্তাদের যদি প্রার্থী না করা হয় সে ক্ষেত্রে অনেকটাই ব্যাগ ফুটে চলে যেতে পারে বিজেপি পঞ্চায়েত নির্বাচনে

by Swaccha Barta

সাগরদিঘী উপনির্বাচনের জয়ের পর থেকে সিপিএম কংগ্রেস পশ্চিমবাংলায় কিছুটা হলেও অক্সিজেন পেয়েছে– 

কংগ্রেস পেয়ে গেছে  উদীয়মান যুব নেতা কৌস্তব বাগচি কে। সেকুলার ফ্রন্ট পেয়ে গেছে নওশাদ  সিদ্দিকীকে। সিপিএমের যে ভোটটা বিজেপিতে শিফট হয়েছিল তার বেশিরভাগ হিন্দু ভোট। সিপিএম  এর সংখ্যালঘু ভোট শিফট হয়েছিল তৃণমূলে। গত বিধানসভা ভোট থেকেই  সিপিএম তাদের রণ কৌশল তৈরি করেছিল কঠিনভাবে। নিজেদের কার্য কর্তাদের   বিজেপিতে ঢুকিয়ে দিয়ে তাদের এজেন্ডা চালাচ্ছিল বিজেপির অন্দরে। যার কারনে বুথ স্তরে এখনও পর্যন্ত বিজেপি তাদের সংগঠন শক্তিশালী করতে পারিনি তার একটাই কারণ গত বিধানসভা ভোটের আগের থেকে এই সিপিএমের লোক গুলো বুথ সভাপতি হয়ে বসে আছে।

এই সমস্ত বুথ সভাপতিরাই বিজেপির সংগঠনকে শক্তিশালী করতে দিচ্ছেনা  বুথ স্তরে। সিপিএমের আদর্শে যারা অনুপ্রাণিত  তাদেরকে প্রার্থী করতে দীর্ঘ ছয় মাস ধরে পঞ্চায়েত স্তরে  সিপিএমের রণ কৌশল অনুযায়ী কাজ করে গেছে এই সমস্ত বুথ ও শক্তিপুঞ্জের প্রমুখরা। সমীক্ষা করে দেখা গেছে পশ্চিমবঙ্গের প্রায় প্রত্যেকটি জেলায় বিজেপির বুথ সভাপতি ২০১৯ এর লোকসভা ভোটের পরে যারা হয়েছেন  তার প্রায় ৯০% মানুষ সিপিএম থেকে এসেছেন। যারা 2019 সালে লোকসভা ভোটে বিজেপিকে সাফল্য এনে দিয়েছিল । তাদেরকে সু কৌশলে বিভিন্নভাবে বুথের রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিয়ে সিপিএমের লোকগুলো বুথ সভাপতি হয়ে বসে পড়েছে.

সিপিএমের আদর্শ এবং বিজেপির আদর্শ পুরো বিপরীতমুখী। বুথ স্তর থেকে যদি কোন সংগঠন শক্তিশালী হয়ে না উঠে তাহলে সেই দল কখনো রাজনৈতিকভাবে রাজনীতি দমন করতে পারে না। রাজ্য দখল তো দূরের কথা।

   Coronavirus Update : করোনা-আক্রান্তের সংখ্যা দ্বিগুণ, তৃতীয় তরঙ্গের পরে দ্রুততম লাফ   

বিজেপির পঞ্চায়েত স্তরে প্রার্থী নির্বাচন সু কৌশলের করতে হবে। পুরনো কার্য কর্তাদের  যদি প্রার্থী না করা হয় সে ক্ষেত্রে অনেকটাই ব্যাগ ফুটে চলে যেতে পারে বিজেপি  পঞ্চায়েত নির্বাচনে। যতই হাওয়া তৃণমূলের বিপক্ষে থাকুক না কেন যদি সিপিএম থেকে আসা লোকগুলোকে বিজেপির প্রার্থী করে পঞ্চায়েতে সে ক্ষেত্রে কিন্তু হিতে বিপরীত হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যাচ্ছে।

Related Articles

Leave a Comment